“রাতের সব তারাই আছে দিনের আলোর গভীরে”

রাতের সব তারাই আছে দিনের আলোর গভীরে

“রাতের সব তারাই আছে দিনের আলোর গভীরে”

রাতের সব তারাই আছে দিনের আলোর গভীরে

 

রাতের নিঃশব্দ নিশ্চুপ অন্ধকার গুলো যেন একটা চেনা আওয়াজ খোঁজে ….
না শুধুই কি রাত দিনের সূর্য কোলাহল সব তো একই তাও মনটা যেন কিসের অপেক্ষা.. কলেজ ক্যান্টিনে চা ডিম টোস্ট আর বন্ধুদের সাথে আড্ডা সিনেমা হালকা ভালো লাগা এই নিয়েই তো জীবন…তাও অপূর্ণতা কিসের?
মা বাবার ভালোবাসা, ঠাম্মির আদর এইতো বেশ..
তবু মনটা কি চায়…
প্রতিবার গানের সুরেই কেন বলে বেড়ায়, “সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে”…
এমনি সময় দেখলাম তোমায়…
প্রতিটা রন্ধ্রে রন্ধ্রে জড়িয়ে থাকা ভালোলাগা ভালোবাসা গুলো যেন তোমার একটা ঝলকেই বেঁচে ওঠে অনেক দিন জল না পাওয়া গাছটা যেমন একটু জলের ছিটে পেয়েই একটু আদর যত্নতেই বেঁচে ওঠার চেষ্টা করে আমিও তোমার এক চোখের চাউনিতে বেঁচে উঠি ভালোবাসায়…
প্রত্যেকটা আঘাতে পাওয়া যন্ত্রনা গুলো যেন প্রেমের মলম পেয়ে যায়…
“কিছুই বাকি নেই সব ভুলে গেছি” বলা এই আমিটাই যেন মেতে উঠি তুমি নেশায়…
সমস্ত মন খারাপের অন্ধকার চিরে সমস্ত পাওয়া না পাওয়ার ব্যর্থতা মুছে যেন জেগে ওঠে এক আলো…
মনটা রবি ঠাকুরের কথা অনুসরণ করে বলে ওঠে
” আমাদের গেছে যে দিন
একেবারেই কি গেছে
কিছুই কি নেই বাকি ?”
মনের প্রত্যেকটা কোনে একটু ধুলো পড়া এলোমেলো হয়ে পড়ে থাকা তোমার ভালোবাসায় লেখা কবিতারা যেন বলে ওঠে
“রাতের সব তারাই আছে
দিনের আলোর গভীরে”

Leave a Reply

Related Post

কিছু ক্ষন পর রিপ্লাই এলো " eyeliner "

কিছু ক্ষন পর রিপ্লাই এলো ” eyeliner “কিছু ক্ষন পর রিপ্লাই এলো ” eyeliner “

কিছু ক্ষন পর রিপ্লাই এলো  “eyeliner” তখন রাত ২:৪৫ ড্রেসিং টেবিলের প্ল্যানটা সবে শেষ হলো। তার সাথে কথা বলতে বলতে কিছুক্ষন চুপ করে গেছি পরের আঁকা শুরু করতে। রিপ্লাইটা পেতে

“কিছু কিছু মানুষ শুধু ভালোবাসার জন্য ‘ প্রেমিক ‘ খোঁজে না, কেউ কেউ ‘ বাবার ‘ ভালোবাসাও খোঁজে”“কিছু কিছু মানুষ শুধু ভালোবাসার জন্য ‘ প্রেমিক ‘ খোঁজে না, কেউ কেউ ‘ বাবার ‘ ভালোবাসাও খোঁজে”

কিছু কিছু মানুষ শুধু ভালোবাসার জন্য ‘ প্রেমিক ‘ খোঁজে না, কেউ কেউ ‘ বাবার ‘ ভালোবাসাও খোঁজে সব মেয়ের কাছে তার বাবা হিরো হয় না, জীবনের সব থেকে খারাপ

খুব জানতে ইচ্ছা করছে, ভালোবাসতে আমায়??

খুব জানতে ইচ্ছা করছে, ভালোবাসতে আমায়??খুব জানতে ইচ্ছা করছে, ভালোবাসতে আমায়??

খুব জানতে ইচ্ছা করছে, ভালোবাসতে আমায়?? রোজ রাতে কাজ সেরে টলতে টলতে ক্লান্ত জীর্ণ শরীরটা যখন বাড়ি ফেরে মুখে একরাশ বিরক্তি নিয়ে, ঠিক তখনই চোখ রাঙানি দিয়ে ওঠে সমস্ত না

%d bloggers like this: